অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন” । Undeclared Unemployment “Teaching Profession”

 “শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড” চিরন্তণ এই বাণিটি যুগ যুগ ধরে শিক্ষাকে যেমন মেরুদণ্ডের মতো সোজা রেখে চলেছে, ঠিক তেমনি মেরুদন্ডকে সোজা রাখতে অক্লান্ত পরিশ্রমের ঘাণি টেনে চলেছে টিচিং প্রফেশনে জড়িয়ে থাকা অগণিত নির্ভেজাল শিক্ষক নামের কিছু মানুষরা। একটি মানুষ যখন সর্বোচ্চ লেখাপড়া শিখে জাতির ভবিষ্যৎ গড়ার দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে শিক্ষক হিসেবে গায়ে তকমা লাগিয়ে নেন, ঠিক তখনি সমাজে তাঁর পরিচয় ভিন্ন হতে থাকে। শুরু হয় নিজেকে চেনানোর যুদ্ধাবস্থা। সমাজের কিছু চোখ তাঁকে দেবতার আসনে বসিয়ে সর্বোচ্চ সম্মান দিয়ে নির্দ্বিধায় গর্বান্বিত হতে শুরু করে, অন্যদিকে বাকি চোখগুলো কুদৃষ্টির তীরে তাঁকে তীরবিদ্ধ করতে থাকে।

শিক্ষক সমাজের অবহেলার পাত্র, অঘোষিত বেকার বলা হয়, অবমূল্যায়িত এদেশের শিক্ষকরা, শিক্ষকতা যেনো অভিশাপ বাংলাদেশে, সম্মান এবং সম্মানী নেই শিক্ষকতায়, কষ্টে দিন কাটায় শিক্ষকরা
অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন

অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন” । Undeclared Unemployment “Teaching Profession” 

ইসলামিক ও শিক্ষামূলক গল্প উপন্যাস পড়ুন এখানে 

                            কেউবা সরাসরি কষ্ট দেয় আবার কেউবা একটু আড়ালে থেকে অট্টহাসে, বলে দেখ্ দেখ্, ব্যাটা এত পড়ালেখা শিখে চাকুরি না পেয়ে শিক্ষকতা করতে শুরু করলো। অর্থ্যাৎ এই সমাজে শিক্ষকতা পেশাকে চাকুরি বলে না, অঘোষিত বেকার বলেই স্বীকৃতি দিয়ে খুশি থাকতে চায়। তাঁকে ডাকে, ঐ মাস্টোর, এই মাস্টার ইত্যাদি ইত্যাদি নামে ব্যঙ্গ ভাষায়। এমনই সমাজ, একবারও ভাবেনা যে এই মানুষগুলোই আমাদের জ্ঞানীয় সম্পদ। তারপরও এগিয়ে চলে সে, স্বপ্ন দেখে, কোনো একদিন কেউ কেউ মানুষ হয়ে আমাকে বলবে, স্যার আমি আপনার অমুক, আজ আপনার পরিশ্রমের ফসল হিসেবে অমুক অফিসার, ইত্যাদি ইত্যাদি।
এ পেশা একটি চরম সাহসিকতার পেশা। নিজের ব্যক্তিগত জীবন, পারিবারিক জীবন থেকে শুরু করে প্রতিটি পায়ে পায়ে ধৈর্যের সহিত সাহকিতার পরিচয় রাখতে হয়। সমাজের কারনে নিজেকে নির্দিষ্ট অসুবিধার গন্ডির মধ্যে রেখেও ছাড়িয়ে যেতে হয় সবাইকে। এ পেশার মানুষকে নিজেকে অন্যের চোখে মডেল হিসেবে চেনাতে হয়, কিন্তু মডেল হতে যে যে অবকাঠামো বা উপাদান প্রয়োজন হয়, তার কোনটিই প্রায় থাকেনা তাঁর কাছে, এবং সমাজের দেওয়া স্বীকৃতস্বরুপ সম্মানী দ্বারা তা মোটানোও অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়। তবুও তিনি যে শিক্ষক, স্যার, দ্বিতীয় ঈশ্বর বা স্রষ্টা। তাকে তো এসব অজুহাত দেওয়া চলবে না। “কথায়-ই তো বলে, সৎ লোকের ভাত নেই, আর সৃষ্টির শ্রেষ্ঠত্ব গায়তে নেই। তাইতো একটি সমাজের বা রাষ্ট্রের মানুষ গড়ার মুল কারিগররা এভাবেই ছেঁড়া কাপড় পরে শিক্ষার্থীদের শেখায়, পরিষ্কার থাকায় জরুরি, ছেঁড়াতে অসুবিধা নেই। লক্ষ্য করে দেখুন, একজন শিক্ষককে যেকোন জায়গায় যেতে মানা, চায়ের দোকানে বসতে মানা, আধুনিক পোশাক পরা মানা, জোরে কথা বলা মানা, বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকা মানা, এমনকি কোনো বেয়াদব অভদ্র রিক্সাচালক তাকে চরম অপমান করলেও তার প্রতিবাদ করা মানা। সমাজের সরল কটাক্ষ, আপনি শিক্ষক মানুষ, ঝগড়া করেন কেন ? জ্বী, হ্যাঁ। এটাই মানুষ গড়ার কারিগরের সমাজস্ত প্রতিদান।

অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন” । Undeclared Unemployment “Teaching Profession”

টিচিং প্রফেশনের মানুষগুলো নিজের পেটে ক্ষুধা রেখে, নিজের চরম দুঃখ লাঞ্চনা বুকে চেপে, নিজের সন্তানের কথা না ভেবে
শিক্ষক সমাজের অবহেলার পাত্র, অঘোষিত বেকার বলা হয়, অবমূল্যায়িত এদেশের শিক্ষকরা, শিক্ষকতা যেনো অভিশাপ বাংলাদেশে, সম্মান এবং সম্মানী নেই শিক্ষকতায়, কষ্টে দিন কাটায় শিক্ষকরা
অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন”


অন্যের সন্তানের মঙ্গল করতে হাসি মুখে মিশতে হয় তাদের। আশেপাশের সবাইকে বোঝাতে হয়, এভাবেই পরম তৃপ্তি।    
ইসলামিক ও শিক্ষামূলক গল্প উপন্যাস পড়ুন এখানে        
            লক্ষ্য করুন, একটি মাতা-পিতা দুজন দুজনে রঙ্গখেলায় মেতে চরম আনন্দ উপভোগ করে আর সৃষ্টিকর্তা তার কেরামতিতে প্রসব কারন সন্তান। ব্যস, সেখানেই মা-বাবা ক্লান্ত প্রায়। জীবনের চরম প্রয়োজনে শিশুর দ্বিতীয় পিতা-মাতাখ্যাত শিক্ষকের হাতে তুলে দেন আর দিন গুণতে থাকেন এই বুঝি সন্তান আমার জজ-ব্যারিস্টার হয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে অন্তঃসারশূন্য লাভের আশায় সেই শিশুটিকে পরম যত্নে মানুষ করে গড়ে তুলছেন শিক্ষক। সেখানেও ভোগান্তি নেহাত কম না, নিজের সন্তান ভেবে শাসন করলেও সমাজের বিধি-নিষেধে অপমানের চক্ষুশাসানী অবধারিত। একেই বলে, ‘যার জন্য করি চুরি, সেই বলে চোর’। পিতা-মাতাকে বাধাধরা নিয়ম-কানুন মেনে সন্তান মানুষ করতে হয়না, আবার মা-বাবা হতে শিক্ষিতও হতে হয়না। কিন্তু একজন শিক্ষককে সকল নিয়মকানুন মেনে অন্যের সন্তান মানুষ করার জন্য সর্বোচ্চ শিক্ষিত হতে হয়। তাকে জানতে হয় কিভাবে একজন নতুনকে স্বাগত জানাতে হয়, কিভাবে সেই নতুনকে সাহস দিতে হয়, কিভাবে তার পোষাক পরতে ও পরাতে হয়, কিভাবে নিজে শিখে শিক্ষার্থীদেরকে শেখাতে হয়ে, কিভাবে শেখানোর পরিবেশ তৈরি করতে হয়, কিভাবে একের পর এক বিরতিহীন ক্লাস নিয়ে নিজেকে শান্ত রাখতে হয়, কিভাবে শেখানোর পর তা থেকে ফিডব্যাক আদায় করতে হয়, কিভাবে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে দৃষ্টির গোচরে এনে দৃষ্টিবন্দি করতে হয়, কিভাবে শাসন করার পর আবার তাকে বা তাদেরকে ‍বুকে টেনে নিয়ে সব কষ্ট/ভ্রান্তি দূর করে দিতে হয়।

অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন” । Undeclared Unemployment “Teaching Profession”

        একজন শিক্ষক বোঝেন যে, বাচ্চারা কাদামাটির মতো, তাই তাদেরকে যেভাবে গড়ে দেওয়া যাবে তাদের জীবনগতি সেভাবেই চলবে। এ জন্যই একজন শিক্ষার্থীর ব্যক্তিত্ব, বিভিন্ন কাজের বাস্তব অভিজ্ঞতা ও চ্যালেঞ্জ গ্রহনের মানসিকতা তৈরি করতে সদা প্রস্তুত থাকেন। শত না পাওয়া আর বঞ্চিত বঞ্চনার মাঝেও আনন্দ খুঁজে নেন একজন টিচিং প্রফেশনাল ব্যক্তি। একজন শিক্ষক এই কথা জানেন ও মানেন, ‘শিক্ষক-শিক্ষার্থীর স্নেহ, ভালবাসা, মায়া-মমতা, সম্পর্কের বাঁধন পৃথিবীর যেকোন ধন-সম্পদের চেয়েও মূল্যবান’। তাইতো পিতৃতুল্য মানুষ গড়ার অঘোষিত বেকার কারিগররা যুগে যুগে এসেছেন, আসছেন এবং আগামীতেও আসবেন, আর গড়ে যাবেন এই সমাজের সৎভিত্তি, আর খুব খুশি থাকবেন যৎসামান্য পাওয়া সম্মান, স্নেহ, ভালবাসা ও মায়া-মমতা নিয়ে।

অঘোষিত বেকারত্ব “টিচিং প্রফেশন” । Undeclared Unemployment “Teaching Profession”

        শিক্ষকতা একটি পেশা নয়, একটি লক্ষ্য। আমি মনে করি, কোন কর্মজীবনের কোনো কাজ-ই শিক্ষকতা পেশার মতো না। কারন অন্য যেকোন পেশা-কে নেশাতে পরিণত করা দুরুহ কিন্তু শিক্ষকতা আগে নেশাতে রূপ নেয়, পরে তার পেশাদারিত্ব হয়। যদিও সমাজ তাকে পেশা বলতে নারাজ, অঘোষিত বেকার বলেই ডাকে। তাই আমাদের উচিৎ, রুচিশীল, দূর্নীতিমুক্ত ও অশ্লীলতা বর্জনকারী এই পেশাকে, পেশাদারিত্বে রূপ দিয়ে অঘোষিত বেকারদের সমাজে প্রতিষ্ঠা করা। তাহলেই প্রতিটি শ্রেণিকক্ষে প্রতিটি জাতির ভাগ্য উৎপন্ন হবে ।

ধন্যবাদান্তে;


লিখেছেন : মসনদ সাগর
শিক্ষক, মাস্টার ট্রেইনার, লেখক ও ফ্রিল্যান্সার, 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

2 মন্তব্যসমূহ

  1. Are you looking for a professional Facebook marketing manager for advertising your business? I am a professional Facebook marketer. I will provide a Facebook marketing service for any business worldwide.
    Order now- https://www.fiverr.com/share/ZoPGDR

    #facebookpromotion #facebookmarketing #promoteyourbusiness #posting #facebookbusiness #socialmediaads #facebookpage #facebookforbusiness #facebookadvertising #promote #page #socialmediamarketer #linkbuilding #digitalmarketingexpert #socialmediamanager #digitalmarketer #fiverrseller #smm #socialmediaadvertising #digitalmarketingagency #fiverrgig #fiverrgigs #socialmediamanagement #facebookads #digitalmarketing #virtualassistance #ppc #digitalmarketingtips #digitalmarketers #fiverr #digitalmarketingstrategy #internetmarketing #campaigns #digitalmarketing2020 #socialmediamarketing #businessmarketing #promotion #yourbusiness #socialmediaexpert #growyourbusiness #facebook #digitalbranding

    উত্তরমুছুন

Always stay connected with SOBAR JONNO BLOG
সবসময় যুক্ত থাকুন সবার জন্য ব্লগের সাথে।