শিক্ষকতায় বিএড ও এমএড কোর্সের খুঁটিনাটি । Details of B.Ed & M.Ed Courses in Teaching Profession



শিক্ষকতায় বিএড ও এমএড কোর্স, বিএড ও এমএড কোর্সের গুরুত্ব, বাংলাদেশের বিএড ও এমএড কোর্সের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বিএড ও এমএড কোর্সের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, আধুনিক শিক্ষায় বিএড ও এমএড কোর্স, সৃজনশীল পদ্ধতিতে বিএড ও এমএড কোর্সের গুরুত্ব, বিএড ও এমএড কোর্স করার সহজ পদ্ধতি নিয়ম ও কৌশল
শিক্ষকতায় বিএড ও এমএড কোর্সের খুঁটিনাটি


শিক্ষকতায় বিএড ও এমএড কোর্সের খুঁটিনাটি। Details of B.Ed & M.Ed Courses in Teaching Profession

( যারা শিক্ষকতা করেন বা শিক্ষকতা পেশায় আসবেন বা আসার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন, তাঁরা অবশ্যই বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স সম্বন্ধে ভালভাবে অবগত আছেন। মূলতঃ এ কোর্স দু’টি শিক্ষকতা পেশার জন্য। একাডেমিক পড়ালেখার বাইরে এই কোর্স দু’টি শিক্ষকদের জন্য প্রশিক্ষণ কোর্স হিসেবে পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নের অতিরিক্ত যোগ্যতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বর্তমানে সরকারি বা বেসরকারি প্রায় সকল প্রতিষ্ঠানেই বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স অর্জনকারী প্রার্থীকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। অদূর ভবিষ্যতে শিক্ষকদের জন্য কোর্স দু’টি বাধ্যতামূলক করার আভাস মিলছে। এই কোর্স সম্পন্নকারী শিক্ষকদের আলাদা উচ্চ বেতন প্রদান করা হয়। এই কোর্স দু’টিতে আদর্শ শিক্ষক ও প্রশাসনিকভাবে দক্ষ হওয়ার জন্য হাতে কলমে অনেক কিছু শেখানো হয়। তাই যারা শিক্ষক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে আগ্রহী, তাদের অবশ্যই উচিৎ হবে কোর্স দু’টি সম্পন্ন করে নেওয়া। 
নিচে বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স নিয়ে আলাদা আলাদা বর্ণনার সংক্ষিপ্ত তুলে ধরা হল

বিএড (B.ed) কোর্স : 

বিএড (B.ed) যার পূর্ণ রূপ Bachelor of Education, বাংলাতে শিক্ষায় স্নাতক। এই কোর্সটা সাধারনত সহকারি শিক্ষক পদের জন্য প্রযোজ্য হয়ে থাকে, কখনও কখনও বিএড কোর্স থাকার কারণে সেই শিক্ষককে মর্যাদাস্বরুপ সিনিয়র শিক্ষক বলা হয়ে থাকে, যে কারণে সেই শিক্ষকের বেতন বা সম্মানীও বেশি হয়ে থাকে। 

বিএড (B.ed) কোর্সের মেয়াদ : 

দুই ধরনের মেয়াদের কোর্স চালু আছে-
            ১। ৪ বছর মেয়াদী বিএড অনার্স কোর্স এবং 
           ২। ১ বছর মেয়াদী সাধারণ কোর্স চালু রয়েছে।
৪ বছর মেয়াদী অনার্স কোর্সে মোট ৮ সেমিস্টারে পরীক্ষা হয় এবং ১ বছর মেয়াদী সাধারণ কোর্সে ২ সেমিস্টারে পরীক্ষা হয়ে থাকে। 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ৪ বছর মেয়াদী অনার্স কোর্স শুধুমাত্র ঢাকা টিচার্স ট্রেনিং কলেজে চালু রয়েছে। সারাদেশে সকল বিএড (B.ed) কলেজে অনার্স কোর্স চালু হয়নি। এছাড়া বেসরকারী বা প্রাইভেটভাবে বিভিন্ন টিচার্স ট্রেনিং কলেজগুলো উভয় মাধ্যমেই কোর্স করিয়ে থাকে। মনে রাখতে হবে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিএড (B.ed) কোর্স করতে হলে অবশ্যই শিক্ষার্থীকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করতে হবে। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধীনে এই কোর্স করতে পারে না। এছাড়াও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ১ বছর মেয়াদী এই কোর্স করতে অবশ্যই ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। যেখানে বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন করা হয়, এছাড়াও বিষয় সংশ্লিষ্ট প্রশ্নও হয়ে থাকে। তাই যারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএড (B.ed) কোর্সে ভর্তি হতে চান তাঁরা খোঁজ রাখবেন কবে ভর্তি পরীক্ষা হবে। তবে ৪ বছর মেয়াদী অর্নাস কোর্সের জন্য কোনো ভর্তি পরীক্ষা দিতে হয়না, জিপিএ’র ভিত্তিতে ভর্তি হতে হয়। 

বিএড (B.ed) কোর্সে ভর্তির যোগ্যতা : 

৪ বছর মেয়াদী অর্নাস কোর্স করার জন্য প্রার্থীকে কমপক্ষে ২য় বিভাগে বা জিপিএ ২.০০ পেয়ে এইচএসসি বা সমমান পাস হতে হয়। কারণ অনার্স কোর্সটি এইএচসি বা সমমান পাস করা শিক্ষার্থীদের জন্যই। আর ১ বছর মেয়াদী সাধারণ কোর্সের জন্য প্রার্থীকে ন্যূনতম ২য় বিভাগে স্নাতক পাস হতে হবে। মনে রাখবেন স্নাতক পাস করা শিক্ষার্থীদের জন্য অর্নাস কোর্স না। 

সরকারি ও বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকরা “শিক্ষক ক্যাটাগরী”তে এবং শিক্ষকতা করেন না যারা তাঁরা “অশিক্ষক ক্যাটাগরী”তে বিএড (B.ed) কোর্স করতে পারবেন। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পাস করা শিক্ষার্থীরাও শর্তপূরণ সাপেক্ষে ভর্তি হতে পারবেন। 

বিএড (B.ed) কোর্সে যা পড়ানো হয় : 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত দেশের সব সরকারি বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজে যেসব বিষয় পড়ানো হচ্ছে- শিক্ষণ দক্ষতা, মাধ্যমিক শিক্ষা, শিক্ষাক্রম ও শিশুর ক্রমবিকাশ, শিখন-মূল্যযাচাই ও প্রতিফলনমূলক অনুশীলণ, মৌলিক কম্পিউটার দক্ষতা এবং কর্মসহায়ক গবেষণা। এছাড়া ঐচ্ছিক বিষয় হিসেবে গ্রুপভিত্তিক বাংলা, ব্যবসায় শিক্ষা, ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান, সামাজিক বিজ্ঞান, ধর্ম শিক্ষা, কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য অর্থনীতি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিসহ অন্যান্য বিষয়। 

বিএড (B.ed) কোর্সের সিলেবাস :

৪ বছর মেয়াদী (৮ সেমিস্টার) অর্নাস কোর্সের জন্য সিলেবাসের পিডিএফ লিংক : 



১ বছর মেয়াদী (২ সেমিস্টার) সাধারণ কোর্সের জন্য সিলেবাসের পিডিএফ লিংক : 


এমএড (M.ed) কোর্স

এমএড (M.ed) যার পূর্ণ রূপ Masters of Education, বাংলাতে শিক্ষায় স্নাতকোত্তর। এই কোর্সটা সাধারনত সহকারি প্রধান শিক্ষক/উপাধ্যক্ষ ও প্রধান শিক্ষক/অধ্যক্ষ পদের জন্য প্রযোজ্য হয়ে থাকে। এমএড (M.ed) কোর্সে প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনায় দক্ষ করে গড়ে তোলার শিক্ষা হাতে কলমে দেওয়া হয়। বর্তমানে মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এমএড ডিগ্রীধারী প্রার্থী ছাড়া প্রশাসনিক পদে নিয়োগ দিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করে। 

এমএড (M.ed) কোর্সের মেয়াদ : 

১ বছর মেয়াদী কোর্সে ২ সেমিস্টারে পরীক্ষা হয়ে থাকে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও বড় বড় বেসরকারি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এই কোর্স করা যায়।

এমএড (M.ed) কোর্সে ভর্তির যোগ্যতা : 

শুধূমাত্র বিএড (B.ed) পাস করা শিক্ষার্থীরাই ভর্তির সুযোগ পেয়ে থাকেন। 

এমএড (M.ed) কোর্সে যা শেখা যায় : 

শিক্ষণীয় বিষয় হচ্ছে- প্রশাসনের ধারণা, তত্ত্ব ও বৈশিষ্ট্য, শিক্ষায় নেতৃত্ব, জাতীয় প্রেক্ষিতে শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা, শিক্ষা পরিকল্পনা, পরিদর্শন তত্ত্বাবধান, শিক্ষাক্ষেত্রে অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনা এবং চাকরির বিধিমালা। 

বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্সে চাকরির সুযোগ সুবিধা : 

বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে চাকুরিতে অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। তাঁরা বিসিএস (শিক্ষা), শিক্ষা মন্ত্রণালয়, নায়েম, শিক্ষা বোর্ড, জাতীয় পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, শিক্ষা অধিদপ্তর, শিক্ষক প্র্রশিক্ষণ কলেজসহ বেসরকারি শিক্ষা সেক্টরেও বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স সম্পন্ন করা শিক্ষার্থীদেরকে বিশেষ সুবিধায় চাকুরি দেওয়া হয়ে থাকে। বর্তমানে কিছু জাতীয় ও আন্তজার্তিক এনজিও সংস্থা তাদের শিক্ষামূলক প্রকল্প পরিচালনার জন্য বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স সম্পন্ন জনশক্তি নিয়োগ দিয়ে থাকছে। যেমন : ব্র্যাক, প্রশিকা, আহসানিয়া মিশন, সেভ দ্যা চিলড্রেন, ইউএস-এ্যড, ইউনোস্কো, ইউনিসেফ, ইত্যাদি। 

সবশেষে এটা বলায় বাহুল্য যে, বর্তমান সময় থেকে সামনে যতদিন আসবে বিএড (B.ed) ও এমএড (M.ed) কোর্স সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের শিক্ষাক্ষেত্রে কাজের পরিধি ও সুবিধা বাড়তেই থাকবে। 

বর্তমানে দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত ১২০টিরও বেশি বৈধ শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ রয়েছে, তার মধ্যে সরকারি ১৫টি। 

নিচে সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের নাম তুলে ধরা হলো

১। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, ধানমন্ডি, ঢাকা। 

২। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ (পুরুষ), সদর, ময়মনসিংহ। 

৩। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ (মহিলা), সদর, ময়মনসিংহ। 

৪। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, ফরিদপুর। 

৫। সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ, সদর, রংপুর। 

৬। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, পাবনা। 

৭। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, রাজশাহী। 

৮। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, খুলনা। 

৯। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, যশোর। 

১০। সরকারি আঃ রব সেরনিয়াবাদ টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, বরিশাল। 

১১। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, কোটবাড়ি, কুমিল্লা। 

১২। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, ফেনি। 

১৩। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, বাকলিয়া, চকবাজার, চট্টগ্রাম। 

১৪। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, সিলেট। 

১৫। সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, রাজশাহী। 




ধন্যবাদ, “সবার জন্য ব্লগ” –এর পাঠকদের। আশা করছি “ শিক্ষকতায় বিএড ও এমএড কোর্সের খুঁটিনাটি (Details of B.Ed & M.Ed Courses in Teaching Profession) " আর্টিকেলটি কিছু তথ্য দিতে পেরেছে। পরামর্শ লিখুন এবং অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন।



লেখক : মসনদ সাগর
 প্রধান শিক্ষক, মাস্টার ট্রেইনার, লেখক ও ফ্রিল্যান্সার, 
  by- sobar jonno blog –সবার জন্য ব্লগ ।।।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

19 মন্তব্যসমূহ

  1. অত্যন্ত উপকারী একটি বিষয়। ধন্যবাদ

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. সবার জন্য ব্লগ -এর সাথেই থাকুন, ভাল ভাল কিছু তথ্য উপাত্ত তুলে ধরার ইচ্ছে আছে।

      মুছুন
  2. আমি মনোবিজ্ঞানে অনার্স করেছি এখন কি বাউবিতে বি এড ১ বছরের কোর্স করতে পারবো?

    উত্তরমুছুন
  3. Ame private university theke honours pass korechi.national e B Ed krte parbo?

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. জ্বি, অবশ্যই পারবেন, ধন্যবাদ, সবার জন্য ব্লগ এর সাথে থাকার জন্য।

      মুছুন
  4. বিএল এবং এলএলবি এর মধ্যে পার্থক্য কি

    উত্তরমুছুন
  5. এক বছরের কোর্স টির জন(B.ed) টোটাল কত খরচ আসতে পারে, একটু বলবেন।

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. প্রতিষ্ঠানভেদে বেশ পার্থক্য হয়ে থাকে, সরকারি, বেসরকারিভাবে,,, আপনি কোথায় করবেন, সেখানে খোঁজ নিন।

      মুছুন
  6. সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ থেকে কি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স/ মাস্টার্স করার পর ১ বছর মেয়াদি বিএড কোর্স করা যাবে?????

    উত্তরমুছুন
  7. মাদ্রাসা থেকে ফাজিল পাশ করেছি ২০১৯ সালে এখন কি আমি বি এড কোর্স করতে পারবো?দয়াকরে জানাবেন।

    উত্তরমুছুন
  8. আসসালামু আলাইকুম স্যার,কেমন আছেন? আমি ২০১৯-২০২০ সালে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএডে ভর্তি হয়েছি কিন্তু ১০/০২/২০২২ পর্যন্ত বিএড শেষ হয়নি, আমি ০৭/০২/২০২২ সালে সরকারি হাইস্কুলে ( রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল) যোগদান করি। এখন উন্মুক্ত থেকে বিএড আমার জন্য গ্রহণ যোগ্য হবে কি? স্কুলের অনেক স্যার বলছেন, উন্মুর বিএড গ্রহনযোগ্য নয়। সঠিক পরামর্শ চাচ্ছি।

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. ওয়ালাইকুম আস্ সালাম, আলহামদুলিল্লাহ ভাল আছি, নিশ্চিন্তে আপনি কোর্স করুন, কোনো অসুবিধা হবেনা, ধন্যবাদ, সবার জন্য ব্লগ এর সাথে থাকার জন্য।

      মুছুন
  9. ami masters korechi ekhn mpo vukto school e teacher hote cai amr ki বিএড korar dorkar ache??

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. বিএড, এমএড মূলত প্রফেশনাল কোর্স, বর্তমানে বিএড ছাড়া শিক্ষকতা পেশা লবণ ছাড়া তরকারির মতো, বিএড থাকলে সামনে এগিয়ে যাওয়া সহজ এবং সম্মান ও সম্মানীও বেশি, ধন্যবাদ।

      মুছুন
  10. আমি একটা নন এমপিও কলেজে আছি। আমি কি এমএড কোর্স করতে পারবো? ।। উন্মুতে কি এমএড কোর্স আছে?

    উত্তরমুছুন
    উত্তরগুলি
    1. https://bou.ac.bd/images/student_guide/med_study_guide_240419.pdf
      এই লিংকে গেলে উন্মুক্ততে এমএড কোর্সের বিস্তারিত জানতে পারবেন।

      মুছুন

Always stay connected with SOBAR JONNO BLOG
সবসময় যুক্ত থাকুন সবার জন্য ব্লগের সাথে।